শিরোনাম :
সাগরে মাছ নেই হতাশ জেলেরা কলাপাড়ার ডালবুগঞ্জে তিন প্রতিবন্ধী ও দুই বিধবা পেলো প্রধানমন্ত্রীর দেওয়া ঘর কুষ্টিয়া জেলা ইউনাইটেড অনলাইন প্রেসক্লাবের জরুরি সভা অনুষ্ঠিত মৌলভীবাজার শ্রীমঙ্গলে করোনায় মৃত্যুঃ দাফন-কাফনে ইকরামুল মুসলিমীন ফাউন্ডেশন শ্রীমঙ্গল গরীব অসহায়দের মাঝে খাদ্যদ্রব্য বিতরণে প্রশংসনীয় পদক্ষেপ নিলেন পুলিশ সুপার মোঃ নাইমুল হক ঠাকুরগাঁওয়ে পুত্রবধূর আঘাতে শাশুড়ির মৃত্যু ঠাকুরগাঁও সদর পৌরসভার স্থগিত হওয়া ওয়ার্ডটিতে ভোট গ্রহণ চলছে কলাপাড়ার ধুলাসারে বিষপান করে ১ শ্রমিকের মৃত্যু। খানসামায় গণহত্যা দিবস উপলক্ষে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত মিরপুর প্রেসক্লাবের পূর্ণাঙ্গ কমিটি গঠন সভাপতি চঞ্চল মাহমুদ, সাধারণ সম্পাদক জহিরুল রাজশাহী মহানগরে ভূয়া (MLM) কোম্পানীর প্রতারনা পুলিশের অভিযানে গ্রেফতার ০৪ প্রতারক বন্দীদশা হতে উদ্ধার-৩৭ জন করোনার ২য় ঢেউ মোকাবেলায় সর্বত্র সতর্কাবস্থা গ্রহণে তৎপর মহিপুর থানা পুলিশ মির্জাপুর ইউনিয়ন ০৯নং ওয়ার্ডে নির্বাচন আলোচনা সভা রাজশাহী মেট্রপলিটন পুলিশ ভাইরাস ঠেকাতে মাঠে নামছে ধর্মপাশার সুখাইড় রাজাপুর উত্তর ইউনিয়নে স্বেচ্ছাসেবকলীগ আহবায়ক কমিটি অনুমোদিত সমাজ সেবায় কাউন্সিলর আমজাদ হোসেন শেরে বাংলা পদক পেলেন কুয়াকাটা সৈকতে বালু ভাস্কর্য প্রদর্শনীর উদ্বোধন করলেন ডিআইজি কুয়াকাটায় বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকীতে মুসলিম এইডের আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত চিতলমারী বাজার ব্যবসা ব্যবস্থাপনা কমিটির আয়োজনে জাতির পিতার ১০১ তম জন্মশতবার্ষিকী পালন ৩৩৩ নম্বরে ফোন করে চাইলেন সহযোগিতা হাত বাড়িয়ে দিলেন কলাপাড়া’র ইউএনও কলাপাড়াকে জেলার দাবীতে মানববন্ধন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ খুকনি ইউনিয়ন শাখার ত্রি-বার্ষিক সম্মেলন ২০২১ রানীশংকৈলে ৮ মার্চ আন্তর্জাতিক নারী দিবস উদযাপন উপলক্ষে আলোচনা সভা কালীগঞ্জে নজরুল মাষ্টারের বিরুদ্ধে সরকারী গাছ কর্তন সহ বিভিন্ন অভিযোগ কলাপাড়ায় জিএনবি’র উদ্যোগে আন্তর্জাতিক নারী দিবস পালিত ঐতিহাসিক ৭ মার্চ উদযাপন মহিপুর থানা পুলিশ ও কুয়াকাটা পৌরসভায় উন্নয়নশীল দেশে উত্তরনে কলাপাড়া থানা পুলিশের আনন্দ উদযাপন মিশ্রিপাড়ায় সীমা বৌদ্ধ বিহারের জমি দখলমুক্ত করতে রাখাইনদের মানববন্ধন মিশ্রিপাড়ায় সীমা বৌদ্ধ বিহারের জমি দখলমুক্ত করতে রাখাইনদের মানববন্ধন সাভার বাসস্ট্যান্ডে হিজড়া হকার সংঘর্ষ আহত – ১০ ঠাকুরগাঁওয়ের বালিয়াডাঙ্গীতে অগ্নিকান্ডে ক্ষতিগ্রস্তদের মাঝে ঢেউটিন বিতরণ করলেন- দুলাল রব্বানী আজীবন মানুষের কল্যানে কাজ করে যাবো- পলক পটুয়াখালী জেলার মহিপুর থানার একটি মাদক বিরোধী সাঁড়াশি অভিযান আটক ০১ কলাপাড়ায় ভুট্টা চাষে বাম্পার ফলন: কৃষকের মুখে হাসি কালের সাক্ষী শিব মন্দিরের বটবৃক্ষ সিঙ্গাপুরের তুয়াস নিহতদের জন্য লক্ষ্যমাত্রা ৩ লক্ষ হলেও অনুদানে জমা হয়েছে ৬ লক্ষ ৪ হাজার সিংগাপুর ডলারের উপরে রাজধানী বিভিন্ন জায়গায় বিদ্যুৎ চুরি করে অটোরিকশায় চার্জ। ঢাকার দোহারে ট্রাকের ধাক্কায় নিহত ১ কলাপাড়ার ডালবুগঞ্জ উপ-নির্বাচনে আ’লীগ মনোনীত প্রার্থী বিজয়ী রাত পোহালে ডালবুগঞ্জ ইউপি উপ-নির্বাচন ভোট কেন্দ্রে পুলিশি টহল কলাপাড়ার ডালবুগঞ্জে চেয়ারম্যান পদে উপ-নির্বাচন; চলছে শেষ মুহূর্তের প্রচার প্রচারণা নৌকা প্রতীকের নির্বাচনী অফিস ও বাসায় ভাঙ্গচুর আমি শেষ বয়সে ডালবুগঞ্জ ইউনিয়ন বাসীর পাশে থাকতে চাই, অধ্যক্ষ দেলওয়ার হোসেন শিকদার কলাপাড়ায় নব-নির্বাচিত মেয়রকে সংবর্ধনা রাজশাহী মহানগরীতে গোয়েন্দা পুলিশের অভিযানে লাশ বহনকারী গাড়ীর চাঁদাবাজ দালাল চক্রের সদস্য গ্রেফতার জেলা গোয়েন্দা শাখা (ডিবি), কর্তৃক ৭০০ পিচ ইয়াবা ট্যাবলেটসহ আটক- ০১ কেশবপুর পৌর নির্বাচন অবাধ ও সুষ্ঠ ভাবে সম্পন্ন হবে-সিইসি পাবনার চাটমোহরে প্রধানমন্ত্রীর উপহারের ঘর দেওয়ার আশ্বাসে ইউপি চেয়ারম্যানের অর্থ আদায়ের অভিযোগ ভালুকায় মোটরসাইকেল ও যাত্রিবাহী বাসের মুখোমুখি সংঘর্ষে ২ জন নিহত সাংবাদিক বোরহান হত্যার প্রতিবাদে কু্ষ্টিয়া প্রেসক্লাব কেপিসি’র সমাবেশ ও বিক্ষোভে শেখ হাসিনা সরকারের ক্ষমতার আমলে দেশে ক্রীড়া ক্ষেত্রে ব্যাপক উন্নয়ন হয়েছে- এমপি শাওন ভ্রমণ পিপাসুদের অন্যতম আকর্ষণের জায়গা কুয়াকাটার সমুদ্র সৈকত মহিপুর প্রেসক্লাবের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উদযাপিত কলাপাড়ায় করোনা টিকার ফ্রি রেজিষ্ট্রেশন করছে রয়েল ব্যাচ ২০০০ কলাপাড়া পৌরসভার নির্বাচনে নৌকা ৪১৪ ভোট বেশি পেয়ে বিজয়ী হয়েছেন বিপুল চন্দ্র হাওলাদার, পটুয়াখালী জেলার কলাপাড়া পৌরসভায় আজ ভোটারদের ব্যাপক উপস্থিতিতে শান্তিপূর্ণ পরিবেশ খাদ্যপণ্যসহ চালের মূল্য বৃদ্ধিতে বঙ্গবন্ধু পেশাজীবী পরিষদের উদ্বেগ প্রকাশ আজ ১৪ ফেব্রুয়ারি, ভ্যালেন্টাইনস ডে বা ভালোবাসা দিবস। দোহারে বিডি ক্লিন ও ব্লাড ব্যাংকের ব্যতিক্রমী অনুষ্ঠান। কলাপাড়া নির্বাচন উপলক্ষে পটুয়াখালী জেলা পুলিশের ব্রিফিং ভোট কেন্দ্রে সাংবাদিক নির্যাতন-হয়রাণীকে না বলুন রাজশাহী কর ভবনে বঙ্গবন্ধু কর্ণার ও লাইব্রেরীর উদ্বোধন আরেকটি রাজশাহী বাসীর সবার জন্য সৌন্দর্য যোগ হলো সড়ক বাতি সাতক্ষীরা পৌর নির্বাচনে জুম্মার নামাজান্তে নৌকায় ভোট চাইলেন আসাদুজ্জামান বাবু শাহজাদপুরে ১,শ ৫০জন দুস্হ পরিবারের মাঝে কাপড় ও চাদর বিতরণ করলেন প্রফেসর মেরিনা জাহান কবিতা সাতক্ষীরা পৌর নির্বাচনে নৌকা প্রতীককে বিজয়ী করতে সৈয়দ আমিনুর রহমান বাবু’র নেতৃত্বে গণসংযোগ বরগুনায় পুলিশ সুপার ব্যাডমিন্টন টুর্নামেন্ট লালমোহনে প্রতিপক্ষের হামলার ঘটনায় মামলা, গ্রেফতার-৯ মঠবাড়িয়ায় গাঁজা ও ইয়াবা সেবনকারী ৩ যুবক আটক সাতক্ষীরা জেলা পুলিশের পক্ষ থেকে পৌর নির্বাচনের ৩৭ টি ভোট কেন্দ্র পরিদর্শন শীতার্থদের মাঝে শীত বস্ত্র বিতরণ করলেন চাটখিল উপজেলা প্রেসক্লাব মঠবাড়িয়ায় টিকিকাটা সাঈফী নগর মাদ্রাসায় অভিভাবক সমাবেশ মাদক বিরোধী অভিযান চলছে জেলা পুলিশ যশোরের মাদক বিরোধী বিশেষ অভিযান চলমান। আইন শৃঙ্খলা সক্ষমতা বাড়া‌তে বাংলাদেশ পুলিশে যুক্ত হচ্ছে দুটি অত্যাধুনিক হেলিকপ্টার সাতক্ষীরায় নৌকার প্রার্থীকে বিজয়ী করতে প্রার্থীতা প্রত্যাহার করলেন কাউন্সিলর প্রার্থী রেজাউল সপ্না হত্যার বিচার চাই সপ্নার পরিবার বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগের ৪৮তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত চৌহালীর উপজেলার চেয়ারম্যানের করোনার ভ্যাকসিনের টিকা নেওয়ার অভিনয় ভাইরাল। বরগুনায় স্বামীকে খুন, ৮ মাস পর হত্যারহস্য উদঘাটন,স্ত্রী ও পরকীয়া প্রেমিক গ্রেফতার জামালপুর পৌর নির্বাচনে নৌকা প্রতীকের বিজয় নিশ্চিত করার লক্ষে যুবলীগের যৌথ কর্মী সভা অনুষ্ঠিত লালমোহনে শিশু বিয়ের কারণ, প্রভাব ও প্রতিকার নিয়ে এ্যাডভোকেসি সভা আওয়ামীলীগের উদ্যোগে উগ্র সাম্প্রদায়িক অপর্শক্তি র‌্যাব-৫ রাজশাহী কর্তৃক ০৩ টি আগ্নেয়াস্ত্রসহ ০১ জন অস্ত্র ব্যবসায়ী গ্রেফতার সিরাজগঞ্জ সদরে র‍্যাব ১২ এর অভিযানে ফেনসিডিল সহ ১ মাদক ব‍্যাবসায়ী আটক সিলেট হবিগঞ্জের মাধবপুরে হতদরিদ্র শিশুদের বিনামূল্যে সুন্নতে খৎনা শেষে বস্ত্রসহ ঔষধ বিতরণ রাজশাহীতে সরকার বিরোধী ষড়যন্ত্র এবং নাশকতামূলক গোপন বৈঠকে জামায়াত – শিবিরের ১২ জন আটক লালপুরে ৭ বছরের শিশুর বস্তাবন্দী লাশ উদ্ধার যাত্রীবাহী লঞ্চের স্টাফ কেবিন থেকে নারীর মরাদেহ উদ্ধার সিরাজগঞ্জ জেলার ইন-সার্ভিস ট্রেনিং সেন্টার এবং সদর কোর্ট বার্ষিক পরিদর্শন করেন সম্মানিত অ্যাডিশনাল ডিআইজি রাজশাহী মহোদয় মির্জাগঞ্জ ইউপি নির্বাচনে নৌকার মাঝি হলেন যারা সাতক্ষীরা’র নগরঘাটায় বিট পুলিশিং কমিটির সভা অনুষ্ঠিত

সন্দ্বীপে প্রতিনিয়ত বাড়ছে পর্যটকদের আনাগোনা। কয়েকটি ইকো রিসোর্ট স্থাপন করলে হতে পারে আকর্ষনীয় পর্যটন স্পট।

রিপোর্টারের নাম
  • আপডেট টাইম : সোমবার, ৮ মার্চ, ২০২১
বাদল রায় স্বাধীন: প্রাকৃতিক সৌন্দর্যে ভরপুর সন্দ্বীপ দিন দিন ভ্রমন পিপাসু পর্যটকদের কাছে হয়ে উঠছে একটি আকর্ষনীয় পর্যটন স্পট।চারদিকে বিশাল জলরাশি, সন্দ্বীপের প্রবেশ পথে বিশাল কেওড়াবন, পশ্চিমে ব্লক বেড়িবাঁধের নান্দনিকতা,পাশাপাশি জেগে উঠা নতুন চরে সারি সারি নারিকেল গাছ,চড়ের মাঝে জেগে উঠা নোনা উদ্ভিদ,মাঝে মাঝে ভেড়া ও মহিষের পাল, চরের ভিতর দিয়ে বয়ে যাওয়া ছোট ছোট খালে জেলেদের মাছের নৌকা,গোবরের বিষ্ঠা হতে গই নামে একটি বিশেষ ধরনের জ্বালানী প্রস্তুতের দৃশ্য, কিছু কিছু জায়গায় দড়ি বেঁধে চেউয়া শুটকি শুকানো,নতুন চরে পলি জমা চাষের জমির মাটি বিক্রয়,নৌকা ও ট্রলার তৈরির দৃশ্য, সমুদ্র গর্ভে বিলীন হয়ে যাওয়ার পুর্ব মুহুর্তে গাছগুলো সংগ্রাম করে টিকে থাকার দৃষ্টান্ত দেখে প্রকৃতি প্রেমী মানুষরা নিজের অজান্তে বলে উঠেন বাহ এমন ব্যাতিক্রম দ্বীপ কোথাও খুঁজে পাওয়া দুঃস্কর। আর সেই নদীর কূলে তাবু খাটিয়ে পুর্নিমার চাঁদ দেখা, পড়ন্ত বিকালে সুর্যাস্তের দৃ্শ্য, সুনশান নীরবতা কক্সবাজার ও কুয়াকাটার সৌন্দর্যকেও হার মানায়। এ সমস্ত বিষয় গুলো ফেইসবুকের সুবাদে ব্যাপক প্রচারনার ফলে সন্দ্বীপে প্রায় প্রতিদিন চট্টগ্রাম, ঢাকা সহ দেশের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে ছুটে আসছেন পর্যটকরা। তাবু খাটিয়ে উপভোগ করেন সে অপার প্রাকৃতিক সৌন্দর্য।মুগ্ধ হয়ে দেখে চর ও সাগরের সঙ্গমস্থলের প্রাকৃতিক সৌন্দর্য। এবং উপভোগ করেন তার পাশে ক্রীড়ামোদী যুবক ও কিশোরদের প্রতিনিয়ত ফুটবল টিমের আয়োজন। অপরদিকে জোয়ারের সময়ে এখন ভ্রমন পিয়াসীরা কক্সবাজার সমুদ্র সৈকত বা পতেঙ্গা সি-বিচের মধ্যে তেমন কোন পার্থক্য অনুভব করতে পারেননা। বরং সন্দ্বীপে তার সাথে প্রাকৃতিক সৌন্দয্য যোগ করে নতুন ব্যঞ্জনা। তাই এটিকে প্রশাসনের স্বদিচ্ছা ও স্থানীয় সাংসদের আন্তরিক মনোভাব পারে পুর্নাঙ্গ একটি বিনোদন স্পট বা পর্যটন এলাকায় রুপান্তর করতে, এমনটি জানালেন ঘুরতে আসা বিভিন্ন দর্শনার্থী।
আজ সরেজমিনে গিয়ে দেখা মেলে হরিশপুর সীমানায়
চট্টগ্রাম সিটি কলেজের স্টুডেন্ট তানভীর আহম্মেদ রাফি প্রবাসী সিঙ্গাপুরের রেমিটেন্সযোদ্ধা ওয়াহিদ মুরাদ সহ ৭/৮ জনের একটি পর্যটক দলের। তাদের সাথে কথা বললে তারা জানালেন তাদের চমৎকার অনুভুতির কথা রাখলেন কিছু প্রস্তাবনাও ।
তানভীর আহম্মেদ বলেন অপরিসীম সৌন্দর্যের লীলা ভুমি প্রকৃতির রানী সন্দ্বীপ। সারি সারি নারকেল গাছ,নতুন চরের ফাঁকে ফাঁকে বয়ে যাওয়া ছোট ছোট খাল , গবাদি পশুর পাল, রাত্রে এ সুনশান নিরবতায় বসে চাঁদনী রাত উপভোগ করছি প্রান ভরে। শ্বাস নিচ্ছি নির্মল অক্সিজেন গ্রহনের মাধ্যমে। কোন ময়লা আবর্জনা, ধুলি বালি নেই বলে কোন কাকের উপস্থিতিও নেই এখানে। সেটাই প্রমান করে এখানকার পরিবেশ কত নির্মল। এছাড়াও এখানকার মানুষ গুলো খুবই আন্তরিক।তবে এখানে পর্যটকদের সুবিধার্থে কিছু উন্নয়ন কর্মকান্ড হাতে নিতে হবে সেগুলো হলো দীর্ঘক্ষন অবস্থান করা দর্শনারর্থীদের জন্য একটি গনশৌচাগার নির্মান, সন্ধ্যার পরও বা রাত্রে যারা অবস্থান করবে তাদের সুবিধার্থে কিছু স্ট্রিট লাইট স্থাপন, নিরাপত্তা নিশ্চিত করার জন্য পুলিশের টহল ব্যবস্থা বা ২/৪ জন আনসার নিয়োগ, বসার জন্য কিছু স্থায়ী ব্যবস্থা নিশ্চিত করা এবং কিছু হোটেল রেষ্টুরেন্ট স্থাপন। তাহলে পর্যটকরা স্বল্প সময়ের জন্য এসে খাবার সংগ্রহের কাজে যে সময় ব্যয় করতে হয় সেটা থেকে মুক্ত থাকলে নির্ভেজাল আনন্দ উপভোগ করতে পারবে।
ওয়াহিদ মুরাদ বললেন সম্পুর্ন ব্যতিক্রম কথা তিনি বললেন শহরের কোলাহল মুক্ত পরিবেশে হাঁপিয়ে উঠে মানুষ এখন সন্দ্বীপের মতো জায়গার প্রতি আকৃ্ষ্ট হচ্ছে। এখানে পর্যটন খাতকে শক্তিশালী করতে কিছু উন্নয়ন জরুরী তবে সে উন্নয়ন করতে গিয়ে বাস্তুসংস্থান বা ইকোসিস্টেমের কোন ক্ষতি করা যাবেনা, পাখীদের অভয়াশ্রম তৈরি করতে হবে এটিকে, তাদের কোন ভাবে বিরক্ত করা যাবেনা তাই কিছু ইকো রিসোর্ট তৈরি করা যেতে পারে। কক্সবাজার বা কুয়াকাটার মতো বানিজ্যিক ভাবে বেশী কিছু করতে গেলে সেখানে টেন্ডারবাজি বা অনৈতিকতার বিষয় এসে যাবে। উচ্চস্বরে মাইকিং বা বা ডিজেগানের তালে আনন্দ করতে গেলে প্রকৃতির ব্যাঘাত ঘটবে। সে সমস্ত ঝন্জাট নেই বলে আমাদের সন্দ্বীপ খুব ভালো লেগেছে। সকল বন্ধুদের বলবো প্রকৃতিকে কাছ থেকে দেখতে হলে সন্দ্বীপ এসে ঘুরে যাও।
অন্যদিকে সন্দ্বীপের দুই যুবক শিমুল ও সৌরভ বললেন চরকে আরো বেশী সম্ভাবনাময় ও অর্থনৈতিক জোনে পরিনত করে সেগুলোকে চাষাবাদ যোগ্য করতে পারলে হাজার হাজার একর ভুমি হবে আমাদের উপার্জনের বড় উৎস। তার জন্য জেগে উঠা চরের মাঝ দিয়ে প্রবাহিত অসংখ্য ছোট ছোট খালের মধ্যে ২/১ টি মুল খাল চিহৃিত করে সেগুলো ড্রেইজিং করে গভীর করে সে মাটি দিয়ে বাকি খালগুলো বন্ধ করে দিতে হবে তার জন্য একটি ড্রেইজিং মেশিন দীর্ঘ মেয়াদে অবস্থান করতে হবে। এরপর কয়েকটি নোনা বেড়িবাঁধ বা রিং বেড়িবাঁধ দিয়ে সেগুলোতে সিজনাল সব্জী চাষ করে সন্দ্বীপের খাবার চাহিদা মিটিয়ে বাইরেও রপ্তানী করা যাবে এবং বহুজাতিক কোম্পানীগুলোকে ডেকে এনে এখানে মৎস ও গবাদি পশুর চারন ভুমি নিশ্চিত করার মধ্য দিয়ে দুগ্ধজাত পন্য তৈরি ও রপ্তানী করে কোটি কোটি টাকা উপার্জন ও বেকারত্ব দুরীকরনে ভুমিকা রাখবে বলে আমাদের বিশ্বাস।

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর..
এই ওয়েবসাইটের লেখা ও ছবি অনুমতি ছাড়া কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি।
Developed By Bangla Webs